আপনার ঠেলাগাড়ি মার্কা পিসি কে রকেট বানাতে চান? এটা পড়ুন

প্রথমেই বলে নেয়া দরকার যে ঠেলাগাড়িকে রকেট বানানো সম্ভব না। তারপরও যদি আপনি চেষ্টা করতে চান তাহলে দোষের কিছু নেই… আমি নিজে এককালে একটা শামুক মার্কা পিসি ব্যবহার করতাম, কেনা হয়েছিল মনে হয় প্রায় এগারো বছর আগে । ওইটাতে কনফিগারেশন কী ছিল তা বলতে চাই না, শুধু বলতে চাই ওইটার ভিডিও মেমরি ছিল আট মেগাবাইট। কিন্তু আমি কঠোরভাবে সাধনা করে ওটার স্পীড এতটাই বাড়াতে পেরেছিলাম যে আমার এক বড় ভাই ওটার স্পীড দেখে বলেছিলেন, “আরে! নতুন পিসি কিনসো নাকি ?”

প্রথম কথা হল আমার এই লেখার বিষয়গুলো ব্যবহার করতে হলে আপনার ঠেলাগাড়ি মার্কা পিসি ব্যবহার করতে হবে তা নয়, বরং এগুলো ব্যবহার করে আপনি ক্রাইসিস এর মত গেমস এর এফপিএস বাড়িয়ে নিতে পারেন। অথবা যদি আমার বন্ধু পারভেজ এর মতন অটোক্যাড ইলেক্ট্রিকাল ব্যবহার করলে আপনার পিসি “ধাক্কায়া ধাক্কায়া” চলে, তাহলে এগুলো আপনার জন্য।

১. প্রথম কথা, আমি অনেককেই দেখেছি, ডেস্কটপে এত জিনিস রাখেন, যে ওয়ালপেপারটাও দেখা যায় না। এটা করা বাদ দিন। একটা ফোল্ডার করে ওখানে সব ঢুকিয়ে সেটা ডেস্কটপে রাখবেন । দেখতেও ক্লিন, পারফরম্যান্সও সেইইইরকম।

২. একটা রেজিস্ট্রি ক্লীনার ব্যবহার করবেন। এতে কম ঝামেলা পোহাবেন, আর সাথে গতিও পাবেন একটু বেশি। Tune-Up Utilities or Advanced System-Care এরা বেশ ভালো কাজ করে। দুটিরই প্রো ভার্সন আছে, সেগুলো আরো দশগুণ ভালো কাজ করে। প্রো ভার্সনে টাকা লাগে । বাট আমরা জানি টাকা ছাড়া কীভাবে কাজ হয় 😉 ।

৩. থীম টা ডিস্যাবল করে নিতে পারেন। My Computer এ রাইট ক্লিক করে Properties এ যান এরপর Advanced, Settings , তারপর Adjust for best performance দিয়ে দিন। চাইলে শেষের দুইটা অপশনে টিক দিতে পারেন। উইন্ডোজ সেভেন এর ক্ষেত্রে Computer এ রাইট ক্লিক করার পর Advanced System Settings এ যেতে হবে। এরপরের জিনিস একই । আরেকটা কাজ হল Aero Disable করে দেয়া। দেখতে উইন্ডোজ ৯৮ এর মতন লাগবে । তো ? স্পীড তো বাড়বে।

৪. ব্যাকগ্রাউন্ডে কী কী চলছে সে ব্যাপারে খেয়াল রাখুন। একসাথে দশটা প্রোগ্রাম চালিয়েও যদি ভালো স্পীড আশা করেন তাহলে আপনার ঠেলাগাড়ি ঠেলাগাড়িই থাকবে। একটা কাজ হল উইন্ডোজ স্টার্ট হবার সময় যেসব প্রোগ্রাম চালু হয় সেগুলোর মাঝে যেগুলো লাগে না, সেগুলো সরিয়ে দেয়া। ২ নম্বরে যে দুটি সফট দিলাম, সেগুলোতে নিজস্ব Startup Manager আছে। আমার ধারণা run>msconfig ব্যবহার করার চাইতে এগুলো ব্যবহার করাটা ভাল। দেখবেন আবার, সাউন্ড ম্যানেজার আর গ্রাফিক্স কার্ডের প্রোগ্রামটা বুঝে-শুনে সরাবেন।

৫. আপনার পিসির ভার্চুয়াল মেমরি র‍্যাম এর ডাবল করে দিন। ৩ নং এর মতই যাবেন, শেষের উইন্ডোতে আরেকটা ট্যাব দেখবেন। ওখানে গিয়ে পেজিং ফাইল সেট করে দিন। ওটা আপনার উইন্ডোজ যে ড্রাইভে আছে সেটায় না রাখলে ভাল হয়, আর ম্যাক্স সাইজ আর মিনিমাম সাইজ একই যাতে হয়। এরপরে সেট দিয়ে বেরিয়ে যান।

৬. এখন যেটা বলব এটা সবাই প্রথমেই দেখবে মনে করে। ইয়েস… আপনার ডিস্ক ডিফ্র্যাগমেন্ট করুন। (এটা করে আমি খুব ভাল ফল পাইনি, তাই একটু পরেই দিলাম। ) এটা সবচাইতে ভাল কাজ করে যখন আপনার ডিস্ক এ প্রচুর ফ্রি স্পেস থাকে। তাই ডিস্ক থেকে অপ্রয়োজনীয় সব শিফট+ডিলিট করুন। এরপর ডিফ্র্যাগমেন্ট করে দেখতে পারেন।

৭. ডেস্কটপ ব্যাকগ্রাউন্ড ব্যবহার করা বাদ দিন। ব্যবহার করলেও Stretch করবেন না। (শুধু যেসব ঠেলাগাড়ির চাকায়ও জং আছে সেগুলোর জন্য)।

৮. গেম খেলার আগে IOBit এর Gamebooster ব্যবহার করতে পারেন। এটা কাজ করে, আমি নিজেই দেখেছি।

৯. সফটওয়্যার ব্যবহার করলে সেটার টুলবারে সেসব জিনিস ব্যবহার করেন না, সেগুলো সরিয়ে ফেলুন। আর চেষ্টা করুন সিম্পল প্রোগ্রাম ব্যবহার করার। ভিডিও দেখতে উইন্ডোজ মিডিয়া প্লেয়ার ব্যবহার না করে ভিএলসি ব্যবহার করলে বেশি স্পীড পাবেন। এরকম Lightweight সফটওয়্যার ব্যবহার করলে ভাল হয়।

আজ এ পর্যন্তই, আরও অনেক কিছু করা যায়, কিন্তু সব এখন মাথায় আসছে না। আমাদের ল্যাবে কিছু এটম প্রসেসর আছে যেগুলোর উপর এসব করে বেশ ভালো স্পীড(প্রায় দ্বিগুণ 😀 ) পাওয়া গেছে। পিসি ফাস্ট করার ব্যাপারে আপনার কিছু টিপস থাকলে শেয়ার করুন। আর ফিডব্যাক দিন।

আমাদের পরের প্রোজেক্ট হল ওই অ্যাটম প্রসেসরগুলোতে কী করলে NFS:Most Wanted Full Settings এ খেলা যায়। আর একটা গেমকে কীভাবে আরো ফাস্ট করা যায়। গেমাররা Stay Tuned। আর বাকিদের বলি, আবার আসবেন। ধন্যবাদ।

Author : Tahmid
Visit My Blog

Advertisements

14 thoughts on “আপনার ঠেলাগাড়ি মার্কা পিসি কে রকেট বানাতে চান? এটা পড়ুন

Share your thinking

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s